প্রথম কথা, degree Inflation কি?
-কোনো চাকরি বা কাজে প্রার্থীদের প্রয়োজনের তুলনায় অধিক প্রাতিষ্ঠানিক সার্টিফেকেট এর যোগ্যতা চাওয়া হয়, তখন তাকে degree inflation বলে।

degree inflation কখন ঘটে?
– সংজ্ঞা থেকে ইতিমধ্যেই বুঝা যাচ্ছে। যখন প্রয়োজনের তুলনায় কোনো দেশে বা সিস্টেমে কোনো চাকরি বা কাজের বিপরীতে অধিক যোগ্য লোক প্রার্থী হিসেবে আবেদন করে। এক কথায়, কাজের তুলনায় ডিগ্রিধারী লোকের সংখ্যা বেশি হয়ে গেলে এটা ঘটে।

একটা দেশে বা সিস্টেমে এটার বিরূপ বা পজিটিভ প্রভাব কি??
-এটার কোনো পজেটিভ প্রভাব এখনো খুজে পাওয়া যায়নি৷ তবে বিরূপ প্রভাব অনেক।
Money inflation বেশি হলে যেমন বুঝা যায় অর্থনীতির করূন অবস্থা,ঠিক সেরকম degree inflation বেশি হওয়ার অর্থ দেশে পর্যাপ্ত প্রাতিষ্ঠানিক যোগ্য লোক আছে যার বিপরীতে পর্যাপ্ত কর্মসংস্থান নেই। 
ফলাফলস্বরূপ, যাদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নেই কিন্তু কাজের দক্ষতা আছে তারা এতো সার্টিফিকেটধারীর ভিড়ে নিজেকে জায়গা করে নিতে হিমশিম খাবে।
অপরদিকে, সার্টিফিকেট থাকা সত্বেও তারা ঠিক জায়গায় চাকরি পাবে না বরং কাজ করতে হবে নিম্ন পরিসরে। 
যেমন একজন স্নাতক পাশ চাকরী করবে এমন চাকরিতে যেখানে প্রার্থী দরকার উচ্চমাধ্যমিক পাশ, অপরদিকে একজন উচ্চ মাধ্যমিক পাশ এবং অভিজ্ঞতাসম্পন্ন লোক ওই একই পোস্টে চাকরি পাবে না কারণ সেখানে অনেক স্নাতক পাশ আবেদন করবে।

degree inflation কি শুধু উন্নয়নশীল দেশেই আছে??
– না। উন্নয়নশীল বা উন্নত সব দেশেই আছে। তবে উন্নয়নশীল বা অনুন্নত দেশগুলোতে এটার মাত্রা বেশি।

বিশ্বে এটার চিত্র কিরকম??
-ফোর্বস ম্যাগাজিন অনুসারে ২০১৫ সালে আমেরিকায় production supervisor এর ৬৭% জবে স্নাতক ডিগ্রি চাওয়া হয়। এর মধ্যে মাত্র ১৬% স্নাতক পাশ প্রার্থী পাওয়া যায়। অর্থাৎ degree gap ছিল ৫১%। 
(যত শতাংশ একটা নির্দিষ্ট ডিগ্রি চায় এবং প্রকৃত অর্থে যত শতাংশ সেই ডিগ্রিধারী প্রার্থী পায় এই দুইটার পার্থক্য হলো degree gap)
সম্প্রতি কোনো এক পরিসংখ্যানে দেখা যায়,ইউকের এক বিশাল সংখ্যক স্নাতক ডিগ্রিধারীর প্রতি ৪জনের মধ্যে ১জনের মধ্যে হয় বেকার থাকছে অথবা কোনো চাকরি নিচ্ছে যেখানে কোনো ডিগ্রির দরকার নেই। এর পিছনে কারণ হিসেবে বিপুল পরিমাণে শিক্ষাঋণ এবং দৈনিক জীবনযাপনের খরচ বৃদ্ধি। 
The Economist এর প্রকাশনা অনুযায়ী বিশ্বে বি.এ./ অনার্স, বিএসসি অথবা এমবিএ এখন আর কোনো অতিরিক্ত সুযোগ করে দিচ্ছে না চাকরির বাজারে। 
২০১৩ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী পর্যাপ্ত ফ্যাকল্টি পজিশনের জন্য প্রায় ৭০০% বা ৭গুণ বেশি পিএইচডিধারী পাওয়া যাচ্ছে বিজ্ঞান এবং প্রকৌশল সেক্টরে। 
সবকিছুর শেষে, বিশেষ ডিগ্রি যেমন স্নাতকোত্তর, এমবিএ এমনকি পিএইচডি সম্পন্ন করা ব্যক্তিরাও এই স্ফীতির জালে আটকে পড়ছে প্রতিনিয়ত। নিজের কষ্টার্জিত ডিগ্রি কাজে লাগছে না অনেকক্ষেত্রেই।

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে degree inflation এর প্রভাবচিত্র কিরকম??
-degree inflation এ বাংলাদেশে প্রভাব নিয়ে এখন পর্যন্ত কোনো পরিসংখ্যান বা আলোচনা নেই বললেই চলে।
তবে এর প্রভাব আমাদের দেশে যে ভয়াবহ তা অন্য কয়েকটা পরিসংখ্যান থেকে সহজেই বুঝা যাবে।
১.দেশে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা প্রায় ২৬ লক্ষ। 
২.দেশে মোট বেকার প্রায় ৯০লক্ষ বা তারও বেশি।
এই বিশাল বেকার জনগোষ্ঠী চাকরির পিছনে ছুটছে প্রতিনিয়ত।
এইচএসসি সমমানের নিয়োগে প্রার্থী হিসেবে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর এর পরিমাণ বেশি। 
অর্থাৎ পর্যাপ্ত যোগ্য লোক আমাদের দেশে হরহামেশাই যোগ্য কাজ পাচ্ছে না। তারা ছুটছে তাদের যোগ্যতা থেকে নিম্ন পরিসরের কোনো কাজে। 
অপরদিকে যাদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা কম তারা চাকরির বাজারে নিজেদের অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে।

দেশে এই চলমান অবস্থার পিছনে মূলত কারণ কি?
-শিক্ষার হার বাড়ছে কিন্তু চাকরি বাড়ছে না সেই একই হারে।
যার ফলে প্রতিনিয়ত ঘটছে degree inflation.
মূলত কর্মসংস্থান স্বল্পতাই হল এটার পিছনের মূল কারণ। 
কর্মসংস্থান প্রয়োজনীয়তা অনুসারে বৃদ্ধি পাচ্ছে না। কারণ
-গুণগত শিক্ষার অভাব। 
-দেশের প্রয়োজন অনুযায়ী শিক্ষা কাঠামো বা কারিকুলাম না বানানো
-ব্যবহারিক শিক্ষার উপর কম জোর দেওয়া
-শিক্ষার মান বৃদ্ধির বদৌলতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বৃদ্ধি
-শিক্ষাক্ষেত্রে পর্যাপ্ত বাজেট না থাকা
-শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতি

degree inflation এর কারণে মূলত সুবিধাভোগী কারা?
-বিশ্ব পরিসংখ্যান অনুযায়ী স্নাতক বা তার বেশি ডিগ্রিধারীদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা বেশি থাকে। ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন পোস্টের বিপরীতে অতিরিক্ত শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর যোগান পাচ্ছে। আর এসব শিক্ষিত জনগোষ্ঠীকে খুব অল্প সময়েই কাজে, কমিনিউকেশন দক্ষ এবং কঠিন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পারদর্শী করে তোলা যায়। কিন্তু অধিক যোগান থাকার কারণে এদের সম্মানী বা বেতন সুযোগসুবিধা কম দিলেও পাওয়া যাচ্ছে অনায়াসে। 
মোদ্দাকথা, degree inflation এ ডিগ্রিধারীরা ভারবাহী কিন্তু ফলভোগী বিভিন্ন স্তরের ব্যবসায়ীরা।

এই বিশাল পার্থক্য কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ কি?
-প্রচুর কর্মসংস্থান গড়ে তোলা বা কর্মসংস্থানের সুযোগ করে তোলা ছাড়া কোনো উপায় নাই। কারণ এরকম চলতে থাকলে ভবিষ্যতে ভয়াবহতার রূপ নিবে নিমিষেই।
-শিক্ষার মান বৃদ্ধি
-শিক্ষাক্ষেত্রে বাজেট বৃদ্ধি 
-শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে আনা
-কারিগরী শিক্ষার প্রসার ঘটানো
-কাগজে কলমে শিক্ষার পাশাপাশি ব্যবহারিকের উপর জোর দেওয়া
-দেশের প্রয়োজন অনুযায়ী শিক্ষার কারিকুলাম নির্ধারণ করা
-নতুন উদ্যোক্তাদের পর্যাপ্ত সুযোগ প্রদান করা
-পার্ট টাইম জবের পরিসর বৃদ্ধি করা যাতে শিক্ষা এবং বাস্তব অভিজ্ঞতায় দক্ষতা আনা যায়
-তথ্য প্রযুক্তি,সফটওয়্যার সেক্টরে বিপুল জনশক্তিকে কাজে লাগানো।
এসব পদক্ষেপ যেভাবে বেকারত্ব কমাবে ঠিক একই ভাবে কমাবে ডিগ্রি স্ফীতি বা degree inflation.

Biplab Sarker

Fresh graduate of BUET
Biplab Sarker

Latest posts by Biplab Sarker (see all)

Rate This Article

Leave a Comment

avatar
  Subscribe  
Notify of
Do NOT follow this link or you will be banned from the site!