আমাদের চারপাশ অনেক রাসায়নিক দ্রব্য দিয়ে পরিপূর্ণ। আর এদের মধ্যে খুব কমই আছে যেগুলো একদম ক্ষতিহীন। প্রাচীনকাল থেকে এই আধুনিক যুগ পর্যন্ত লাখ লাখ লোক প্রাণ হারিয়েছে বিষাক্ত রাসায়নিকের কারনে। এরকমই কিছু রাসায়নিক পদার্থ নিয়ে আজকের লেখা-

10. Digoxin

ফক্সগ্লোভ নামক গাছ থেকে পরিশোধন করে এটি সংগ্রহ করা হয়। পরিমিত মাত্রায় Digoxin হার্টের দক্ষতা বাড়ায়, কিন্তু একটু বেশি মাত্রায় এটা ভয়ানক বিষ। চার্লস কুলেন নামে একজন নার্স মেডিকেল গ্রেড Digoxin ব্যবহার করে প্রায় ৪০ জন রোগীকে ইচ্ছাকৃত ভাবে হত্যা করে।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
Digoxin

9. Hydrogen peroxide

আমরা সাধারণত যে পারঅক্সাইড ব্যবহার করি তার ঘনমাত্রা ৩-৬%। উচ্চ ঘনমাত্রায় এটি রকেটে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত হয়। হাইড্রোজেন পার অক্সাইড অতিমাত্রায় উদ্বায়ী, সামান্য স্পর্শে এটি পরিণত হয় ভয়াবহ বিস্ফোরকে (৭০% ঘনমাত্রা)। ২০০৫ সালে লন্ডন সাবওয়ে তে বিস্ফোরক হিসেবে এটা ব্যবহার করা হয় যাতে ৫২ জন নিহত হয়।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
hydrogen peroxide

8. Ethylene Glycol

এটি খুবই পরিচিত একটি নাম, গাড়িতে এন্টি ফ্রিজ হিসেবে ব্যবহার হয়। শীতলকারক হিসেবেও ব্যবহার হয়। দামে সস্তা, দেখতে সাধারণ আর সুমিষ্ট গন্ধ এই তরলটিই হতে পারে মৃত্যুর কারন। এটি শরীরে গিয়ে ক্ষতিকারক অক্সালিক এসিড তৈরি করে। বেশি পরিমাণে খেলে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অঙ্গপ্রত্যঙ্গ অকেজো হয়ে মানুষ মারা যায়।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
Ethylene Glycol

7. Sodium Cyanide

শিল্প-কারখানায় নিয়মিত ব্যবহৃত একটি উপাদান। কিন্তু একটু ভুল আপনাকে দেবে অ্যালমন্ডের মত ঘ্রান, আর সেই সাথে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে মৃত্যু। সায়ানাইড আমাদের দেহের মাইটোকন্ড্রিয়াতে থাকা Cytochrome c oxidase নামক প্রোটিনের সাথে যুক্ত হয়ে কোষে অক্সিজেন ব্যবহার বন্ধ করে দেয়।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
Sodium cyanide

6. Mercury বা পারদ

জ্বর এসেছে কিনা দেখার জন্য থার্মোমিটার ব্যবহার করা হয় প্রায়ই, এতে থাকে পারদ। এই উপকারী পদার্থটিই হতে পারে মৃত্যুর কারন। এটা সাধারণ তাপমাত্রায় তরল, খুব সহজেই বাষ্পীভূত হয়। এই বাষ্প খুব সহজেই নিঃশ্বাসের সাথে শরীরে যেতে পারে। সবচেয়ে ভয়ের কথা হল- এটি ত্বকের মাধ্যমে শোষিত হতে পারে। খুব সহজেই মিশে যেতে পারে আমাদের ফুড চেইনে। পারদ মস্তিষ্কের ব্যাপক ক্ষতি করে। আস্তে আস্তে মানুষ পাগল হয়ে যায় এবং পরিশেষে মৃত্যু।

কিংবা “Mad as Hatters” কথাটা শুনেছেন কখনো? একসময় মাথার হ্যাট তৈরিতে পারদ ব্যবহার করা হত। ফলে টুপি প্রস্তুতকারকেরা মানসিক সমস্যায় ভুগত। স্পেনে পারদের খনিতে জোর করে শ্রমিকদের নিয়োগ দেয়া হত। স্থানীয়রা তাদের সন্তানদের বাঁচাতে দেহের কোনো একটা অঙ্গ অকেজো করে দিত, যাতে খনিতে কাজ করতে না হয়!

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
Mercury

5. Nicotine

এটি এই লিস্টে থাকা একমাত্র বিষ যা মানুষ টাকা দিয়ে কিনে সাদরে গ্রহণ করে। তামাক পাতা থেকে এটা পাওয়া যায়। সিগারেটের ০.৬-৩% থাকে নিকোটিন, এটি খুবই নেশার সৃষ্টি করে। নিকোটিন শরীরে গিয়ে রক্তের সাথে মিশে যায়। শ্বাসকষ্ট আর ক্যান্সার সহ নানান রোগের কারন এটি। সবচেয়ে ভয়ের ব্যাপার- অধুমপায়ীরাও নিকোটিন দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে ধুমপায়ী দের ছাড়া ধোঁয়ার কারনে। আর পুরোপুরি তরল নিকোটিন সরাসরি গ্রহন করলে কয়েক ঘন্টার মধ্যে মৃত্যু হতে পারে।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
Nicotine

4. Tabun

একদম প্রথম দিককার নার্ভ এজেন্ট। ফলের মত ঘ্রাণ বিশিষ্ট এই তরল স্প্রে করে ছড়ানো যায়। এটি সহজেই প্যারালাইসিস ঘটায়। টাবুন সরাসরি প্রাণঘাতী না হলেও যুদ্ধক্ষেত্রে এর ক্ষমতা অসাধারণ। টাবুন থেকে তৈরি Ricin আর Soman ভয়াবহ রকমের প্রাণঘাতী (Breaking Bad টিভি সিরিজটি এবার দেখে ফেলতে পারেন ;))। ইরাকি সৈন্যরা আশির দশকে ইরান-ইরাক যুদ্ধের শেষের দিকে টাবুন ব্যবহার করে। এতে হাজার হাজার ইরানি নিহত হয়।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ
Tabun

3. 2,3,7,8-Tetrachlorodibenzo-p-dioxin বা Agent Orange

ভিয়েতনাম যুদ্ধে আমেরিকান বাহিনী ভিয়েতনামে এই রাসায়নিক স্প্রে করে। এর ফলে লাখ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়। এটি সরাসরি ডি,এন,এ, ক্ষতিগ্রস্ত করে। এর ফলে লিউকোমিয়া এবং ক্যান্সার হয়।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ

2. VX

একেবারে প্রথম সারির রাসায়নিক অস্ত্র। VX এর মাত্র ১০ মিলিগ্রাম একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মৃত্যুর জন্য যথেষ্ট। সাধারণত ১৫ মিনিটের মধ্যে আক্রান্ত ব্যক্তি মারা যায়। বিশ্বে এর মজুত গুলো প্রায় সবই নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের ভাই Kim Jong Nam কে এটি ব্যবহার করে হত্যা করা হয়।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ

1. Batrachotoxin

এটি সবচেয়ে বিষাক্ত নন পেপটাইড। এক প্রজাতির ব্যাঙের চামড়া থেকে থেকে এটি সংগ্রহ করা হয়। বন জঙ্গলে থাকা মানুষেরা তীরের ফলায় এই বিষ মাখিয়ে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে। মজার ব্যাপার হল- ব্যাঙ এটি সরাসরি তৈরি করে না। এরা মেলিরিড নামক পাতা খায় যা পাকস্থলীতে গিয়ে এই বিষ তৈরি করে।

সবচেয়ে বিষাক্ত ১০টি রাসায়নিক পদার্থ

তো এখানে ১০ টা রাসায়নিক নিয়ে আলোচনা করলাম। আরও কোন কোন রাসায়নিক এই লিস্টে আসা উচিত বলে মনে হলে কমেন্টে লিখে ফেলুন। আর ভাল লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
Galib Hassan Khan

Galib Hassan Khan

Co-Founder & CFO at Bohubrihi
An enthusiast who instead of doing what others do, likes to stand for a while and thinks "what's happening out there?"
Galib Hassan Khan
Rate This Article

Leave a Comment

avatar
  Subscribe  
Notify of
Do NOT follow this link or you will be banned from the site!