আর্টিকেলটি লিখেছেন ইন্টারক্লাউড লিমিটেডের সিনিয়র ডেভঅপ্স ইঞ্জিনিয়ার সজল আহামেদ

অনলাইনে কোর্স করা ব্যাপারটা সাধারণ হয়ে গিয়েছে আমাদের সবার কাছে। ব্যাপারটা অনেক কাজের। অন্তত আমার কাছে। আমি গত এক বছরে বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্মে অনেক গুলো টাকা ঢেলেছি নিজের ইম্প্রুভমেন্ট এর জন্য। এখনো ঢেলেই চলছি। তাই মনে হইল এইগুলা নিয়ে একটু ভাবসাব নেই।

প্রথম কথা হচ্ছে আপনি নিজের গাটের টাকা খরচ করবেন। এইটা আপনার ইনভেস্টমেন্ট। এখন এই ইনভেস্টমেন্ট থেকে আপনার কিন্তু আবার কিছু না কিছু তুলে আনতে হবে। তো সেই জিনিসটা আপনি কিভাবে করবেন? পয়সা উসুল কিভাবে করবেন? কোর্স থেকে বেস্ট আউটকাম কিভাবে আনা যায়?

আমরা যখন কোর্স করতে বসলেই ধরে নেই এই কোর্স করার পরে আমরা সবাই অনেক জ্ঞানী কেউ হয়ে যাব। এই ধারণা থেকে সবার আগে বের হয়ে আসতে হবে। কোর্স আপনাকে জ্ঞান অর্জনের রাস্তা দেখাবে রাস্তা সহজ করবে। কিন্তু এইটাকে পুরোপুরি আপনার ভিতরে নেবার দায়িত্ব আপনার। এইখানে আপনি পরীক্ষায় পাস করার জন্য পড়ছেন না। এইটা মাথায় রাখতে হবে। ভিডিও শেষ হয়ে গেলেই আপনি সার্টিফিকেট পেয়ে গেলেন। এই সার্টিফিকেটের নেশাই আমাদের শেষ করে দেয়।

প্রথম রুল, আপনি সার্টিফিকেটের জন্য কোর্স করছেন না। তাই ওইটার ব্যাপারটা মাথা থেকে ফেলে দিন।

প্রথম রুলটা যদি মাথায় ঢুকে যায় তাহলে আপনার জন্য রাস্তা অনেক সহজ হয়ে গেল। আপনি একটা গোলামি থেকে মুক্তি পেলেন। এখন যখন আপনি কোর্স করতে শুরু করলেন তখন আপনি আর নিজেকে ফাকি দিবেন না। আমি যেমন খাতায় প্রচুর লেখি ভিডিও লেকচার দেখার সময়। এতে কি হয় আমি চিন্তা করার সময় পাই। একটা টপিক নিয়ে হয়ত ইন্সট্রাকটর একটা কথা বলল। এইটা বলল কেন? পিছনের ঘটনা কি? এইগুলা খাতায় নোট নেই। লাল কালি,নীল কালি এইসব দিয়ে লিখি। বিষয়টা হাস্যকর হতে পারে। কিন্তু আমার অনেক কাজে লাগে। আমার নলেজ ডট গুলো কানেক্ট হয়। এই নলেজ ডট নিয়ে একটু পরে বলব।

ভিডিও দেখার সময় হাজার হাজার প্রশ্ন মাথায় ঘোরে। সব যদি আপনি লিখে ফেলেন তাহলে একটা অসাধারণ জিনিস হবে। একটা মাইন্ডম্যাপ তৈরি হবে। ধরেন আমি Docker নামে একটা টেকনোলজি শিখব। এখন কোর্স করতে গিয়ে দেখলাম এর নেটওয়ার্কিং নিয়ে আমার অনেক প্রশ্ন। সব খাতায় লিখতে শুরু করলাম। কন্টেইনার টেকনোলজির ইতিহাস ঘাটলাম। আর অনেক প্রশ্ন আসল মাথায়। namespace কি জিনিস, veth pair কি? nat এর ঘটনাটা কি? দেখেন এইগুলা হয়ত এই কোর্সের অংশ না। কিন্তু আপনার মনে এইগুলা নিয়ে খচখচ করবে। আপনি এইগুলা পারে না।

আপনার মাথায় অনেকগুলো নলেজ ডট তৈরি হবে। একেকটা ডট এক একটা প্রশ্ন। আপনি কিন্তু আপনার রাস্তা পেয়ে গেলেন। এখনো কিন্তু আপনি পুরা কোর্স করেন নি। দ্বিতীয় রুলটাই হল এরকম নলেজ ডট বানানো। কি কি শেখা দরকার তার একটা ফুল আইডিয়া মাথায় সেট হয়ে যাবে।

পুরা কোর্স করার সময় আপনি আরো এরকম হাজারটা প্রশ্ন করলেন নিজেকে। এখন আপনি হয়ত বলবেন ভাই এইবার তো পাগল হব। আমার মনে হয় হবে না। কারণ আপনি যখনই প্রশ্ন করবেন তখনি মজা পেতে শুরু করবেন। ভালো লাগবে ব্যাপরটা। আপনি এর পরে ভিডিও দেখে হয়ত কিছু প্রশ্নের উত্তর পাবেন। নিজের docker নিয়ে হয়ত গুতাগুতি করে কিছু শিখলেন। আপনার নলেজ ডটের অনেক গুলোর উত্তর আপনার কাছে আছে। ভালোই লাগছে আপনার।

তবে এখন এক নতুন প্রবলেমে পরবেন। এই নলেজ ডট গুলোর মধ্যে রিলেশন কি? আপনি জানেন veth pair একটা virtual wire। কিন্তু ভাই docker এইটা লাগতেছে কেন? Docker এর নলেজ ডটের সাথে veth pair নলেজ ডটের রিলেশনটা কি?

এইটাই সবচেয়ে কঠিন রুল। ডট গুলোর মধ্যে সম্পর্ক খুঁজে বের করা। এইটাতেই সবচেয়ে কষ্ট। কারণ আপনাকে এইটার জন্য কোর্সের বাইরে গিয়েও আবার পড়তে হবে। হয়ত নতুন কোর্স কেনা লাগতে পারে। হাসির কথা না!

লাস্টের রুলটা যদি আপনি বাদ দেন তাহলে আপনার বেশিরভাগ জিনিস হয়ত হারিয়ে যাবে। মানে কোর্সে যা শিখলেন সব আসলে আপনার কাছে এলোমেলো হয়ে যাবে। এইগুলো আপনার কাছে কিছু প্রশ্নের উত্তর শুধু। মানুষ কিন্তু মুখস্ত করা উত্তর ভুলতে খুব ওস্তাদ । তাই আপনিও ভুলে যাবেন এইটা ধরে রাখতে পারেন। তাই আপনি অনেক প্রশ্ন এর উত্তর শিখলেন। সেগুলোর মধ্যে সম্পর্ক খুঁজতে খুঁজতে একদিন দেখবেন অনেক কিছু শিখে গেছেন।

এইবার এই রুলগুলো হল অস্ত্র। অন্তত আমার জন্য । একটা জিনিসে এক্সপার্ট হতে অনেক সময় লাগে। তাই শেখা জিনিসটা একটা ইনফিনিটি লুপ। শেষ হবে না। কিন্তু এই রুলগুলো কাজে লাগালে আমার মনে হয় আপনি অনেক দূর চলে যেতে পারবেন।

এইখানে সব কিছুই আমার নিজের এক্সপেরিমেন্ট থেকে পাওয়া। কারো টেকনিক হয়ত আরো ভালো হতে পারে। আমারটা হয়ত অনেক খারাপ হতে পারে। কিন্তু আমি এইভাবে চিন্তা করে অনেক ভালো রেজাল্ট পেয়েছি। তাই আপনাদের সাথে শেয়ার করা। আর কিছুই না।

"অনলাইন কোর্স আর আমার পয়সা উসুল!"
4.5 2 votes
Article Rating
Rate This Article
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments