You are currently viewing সেরা কয়েকটি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাক

সেরা কয়েকটি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাক

ভালো একজন ওয়েব ডেভেলপার হতে চাইলে আপনাকে বেশ কয়েকটি টেকনোলজিতে স্কিল অর্জন করতে হবে। কিন্তু নানা ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ আর টেকনোলজির মধ্যে বাছাই করা নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগা স্বাভাবিক। প্রায় সময় ওয়েব ডেভেলপাররা প্ল্যানিং অনুযায়ী ঠিকঠাকভাবে শেখার জন্য স্ট্যাকের উপর জোর দেন। জনপ্রিয় এমন কিছু ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাক নিয়ে আজ জেনে নিন।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাক কী?

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাক হলো কয়েকটি ওয়েব টেকনোলজি বা টুল যেগুলো একসাথে ব্যবহার করে ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন বা ওয়েবসাইট বানানো যায়। এ টেকনোলজির মধ্যে থাকতে পারেঃ

  • প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ
  • ফ্রেমওয়ার্ক আর ফ্রেমওয়ার্ক
  • ডেটাবেইজ ইত্যাদি।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাকগুলোকে মোটা দাগে দুইভাগে ভাগ করা যায়:

  • ফ্রন্ট-এন্ড ডেভেলপমেন্ট
  • ব্যাক-এন্ড ডেভেলপমেন্ট

আবার এ দুটোকে মিলিয়ে হয় ফুল স্ট্যাক ওয়েব ডেভেলপমেন্ট।

যেকোনো প্রোগ্রাম বা প্রজেক্টের জন্য সঠিক স্ট্যাক বাছাই করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আপনার ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাক শুধু কোডিংয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। একে ভবিষ্যতে স্কেলিংয়ে নেয়া বা এর মেইনটেন্যান্সের জন্যও স্ট্যাক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ফ্রন্ট-এন্ড ওয়েব ডেভেলপমেন্ট টুল

কোনো ওয়েবসাইট বা অ্যাপ্লিকেশনের ফ্রন্ট-এন্ড হলো যা আপনার ক্লায়েন্ট দেখতে পান। এ ডিজাইন করার জন্য আপনার হাতে বেশ কয়েকটি অপশন রয়েছে।

কয়েকটি বহুল পরিচিত ও ব্যবহৃত ফ্রন্ট-এন্ড টুল হলো –

  • ল্যাঙ্গুয়েজ: HTML, CSS, JavaScript ইত্যাদি।
  • ফ্রেমওয়ার্ক ও লাইব্রেরি: React.JS, Angular, jQuery ইত্যাদি।

ব্যাক-এন্ড ওয়েব ডেভেলপমেন্ট টুল

ব্যাক-এন্ড টেকনোলজিকে বলা যায় যেকোনো ওয়েবসাইটের মূল ভিত্তি। এখানে সার্ভার ও ডেটাবেইজের সাথে কানেকশন তৈরি করতে হয় আপনাকে। 

ধরা যাক, আপনি যখন একটি অনলাইন ফর্ম পূরণ করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করছেন, তখন আপনি ওয়েবসাইটে ফ্রন্ট-এন্ডের সঙ্গে ইন্টারঅ্যাকশন করছেন। কিন্তু বাটনটি ক্লিক করার পর আপনার দেয়া তথ্যগুলো সঠিক আর প্রযোজ্য কিনা তা যাচাই করে পরবর্তী কাজটা করে ব্যাক-এন্ড ডেভেলপমেন্ট। যেমন, আপনার দেয়া তথ্য স্টোর করে রাখা।

কয়েকটি বহুল ব্যবহৃত ব্যাক-এন্ড ওয়েব ডেভেলপমেন্ট টুল হলো –

  • ল্যাঙ্গুয়েজ: Python, Java, Ruby, PHP ইত্যাদি।
  • ফ্রেমওয়ার্ক: Django, Laravel, Ruby on Rails (RoR) ইত্যাদি।

ফুল স্ট্যাক

আপনি যদি একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনকে সম্পূর্ণরূপে বানাতে চান, তাহলে ফুল স্ট্যাক ওয়েব ডেভেলপমেন্টে যেতে হবে। অবশ্য সব ধরনের স্ট্যাক শেখার দরকার হবে না আপনার। প্রজেক্টের প্রয়োজন আর ইন্ডাস্ট্রির চাহিদা অনুযায়ী আপনি স্ট্যাক বেছে নিতে পারেন।

Python-Django Stack

Django হলো পাইথনের উপর লেখা একটি ফ্রি ওপেন সোর্স ফুল স্ট্যাক অ্যাপ্লিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক।  এটি ব্যবহার করে অনেক সহজে, অনেক দ্রুত ওয়েব ডেভেলপমেন্ট করা সম্ভব। এর একটি বড় সুবিধা হলো, আপনাকে একই কোড বারবার লিখতে হবে না!

২০১৮ সালের ‘Stack Overflow Developer Survey’ অনুযায়ী Django প্রোগ্র্যামারদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। Django Software Foundation-এর মতে,

“(Django was) invented to meet fast-moving newsroom deadlines, while satisfying the tough requirements of experienced web developers.”

কেন Django বেছে নেবেন?

  • অনেকগুলো জনপ্রিয় ডেটাবেইজের সঙ্গে কাজ করতে পারে। এমনকি এক ডেটাবেইজ থেকে অন্য ডেটাবেইজে মাইগ্রেট করার সুবিধাও পাবেন।
  • এ ফ্রেমওয়ার্ক ব্যবহার করে ওয়েব ডেভেলপাররা পেইজের লোডিং টাইম কমিয়ে আনতে পারেন, যা ইউজার এক্সপেরিয়েন্সের জন্য ভালো।
  • Django-র সিকিউরিটি সুবিধা অসাধারণ। Cross-site scripting, request forgery, এবং SQL injection-এর মতো সমস্যা থেকে আপনার অ্যাপকে সুরক্ষিত রাখতে পারে এটি।

MEAN Stack

JavaScript-নির্ভর এ স্ট্যাকে রয়েছে –

  • MongoDB
  • Express.JS
  • Node.JS
  • Angular

MEAN Stack কেন শিখবেন?

  • মডেল ভিউ কন্ট্রোলার আর্কিটেকচারকে সাপোর্ট করে। অর্থাৎ ধাপে ধাপে পুরো কাজকে সাজানো সম্ভব।
  • নির্দিষ্ট অপারেটিং সিস্টেমের উপর নির্ভর করে না।
  • ভালো কমিউনিটি সাপোর্ট পাবেন আপনি।

MERN Stack

MEAN স্ট্যাকের মতো MERN স্ট্যাকও একটি JavaScript নির্ভর স্ট্যাক। এতে রয়েছে –

  • MongoDB
  • Express.js
  • React.js
  • Node.js

দুইটি স্ট্যাকের মধ্যে মূল পার্থক্য হলো এদের গতি ও স্ট্র্যাকচারে। MEAN স্ট্যাক বড় পরিসরের জটিল ডেভলপমেন্ট প্রজেক্টগুলোর জন্য উপযুক্ত, যেখানে কম সময়ে স্কেলেবল প্রজেক্ট বানানোর জন্য MERN স্ট্যাক কাজে দেয়।

MERN স্ট্যাক কেন শিখবেন?

  • তুলনামূলকভাবে সহজে শেখা সম্ভব। এর জন্য আপনাকে শুধু ভালোভাবে জাভাস্ক্রিপ্ট জানতে হবে।
  • স্ট্যাকের সাথে বহু টেস্টিং টুল পেয়ে যাবেন।
  • যেহেতু একে ঘিরে বিশাল কমিউনিটি রয়েছে, কোনো ধরনের সমস্যায় পড়লে সহজে সাপোর্ট পাবেন।
  • মার্ন স্ট্যাক ওয়েব ডেভেলপমেন্টের খরচ বাঁচায় বলে কোম্পানিগুলোর কাছে এ স্ট্যাকের ডেভেলপারদের চাহিদা রয়েছে।

LAMP Stack

ডাইনামিক ওয়েবসাইট বানানোর জন্য সুপরিচিত একটি ওয়েব ডেভলপমেন্ট প্ল্যাটফর্ম হলো Lamp স্ট্যাক। এর বিশেষত্ব হলো, এটি Linux, Apache, MySQL, এবং PHP – এ চারটি টেকনোলজি সমন্বয়ে গঠিত। দীর্ঘদিন ধরে এ স্ট্যাকটি ওয়েব ডেভেলপারদের মধ্যে জনপ্রিয়।

Lamp স্ট্যাক কেন শিখবেন?

  • কম সময়ে প্রজেক্ট বানানো যায়।
  • বহুদিন ধরে জনপ্রিয় হবার কারণে বিশাল সাপোর্ট কমিউনিটি রয়েছে।

আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে কোন স্ট্যাক?

অনেকে সাধারণত একটি ওয়েব স্ট্যাকে পারদর্শী হয়ে থাকেন বা একটি ওয়েব স্ট্যাক ব্যবহার করে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। কিন্তু কোন স্ট্যাক দিয়ে শুরু করলে ভালো হবে, সেটি নির্দিষ্টভাবে বলা কঠিন।

শেখার জন্য স্ট্যাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে –

  • ওয়েব ডেভেলপমেন্টের চাকরি বা কাজে কোন স্ট্যাকগুলো বেশি জনপ্রিয়, সে ব্যাপারে খোঁজ নিন।
  • তুলনামূলকভাবে কোন স্ট্যাক শিখতে কম সময় লাগবে, সেটা বিবেচনা করুন। তবে আপনার বর্তমান স্কিল আর আগ্রহের উপর এটা নির্ভর করবে।
  • কোন ধরনের ওয়েব প্রজেক্ট নিয়ে আপনি ভবিষ্যতে বেশি কাজ করতে চান, সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবার চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে আপনার প্রিয় ছোট-বড় ওয়েবসাইটগুলো কোন স্ট্যাক দিয়ে বানানো, তা নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করুন।
  • বিভিন্ন অনলাইন ডেভেলপারস কমিউনিটিতে কোন স্ট্যাকগুলো বেশি জনপ্রিয়তা আর সাপোর্ট পায়, তার খোঁজ রাখুন।

একটা ব্যাপার মনে রাখা জরুরি। ওয়েব ডেভেলপমেন্টে প্রতি বছরই আপডেট আসতে থাকে। নতুন নতুন টুলের সংখ্যাও কম নয়। তাই শুধু একটি স্ট্যাকে নিজেকে পুরোপুরি আটকে রাখার কোনো দীর্ঘমেয়াদি প্ল্যানিংয়ে না যাওয়াই শ্রেয়। বরং ইন্ডাস্ট্রির চাহিদার সাথে সাথে নিজের স্কিলকেও আপডেট করতে থাকুন।

শুভ হোক আপনার ওয়েব ডেভেলপমেন্টের যাত্রা!

ফুল স্ট্যাক (MERN) ওয়েব ডেভেলপার হয়ে উঠুন ৬ মাসে

নতুন ব্যাচের রেজিস্ট্রেশন (৫০% ডিসকাউন্ট) বন্ধ হচ্ছে

১০ অক্টোবর ২০২১


MERN স্ট্যাক শেখার এক্সক্লুসিভ সাপোর্ট পান বহুব্রীহির ক্যারিয়ার ট্র্যাক প্রোগ্রাম থেকে। প্রজেক্ট-বেইজড এ অনলাইন কোর্সে অংশ নিতে হলে আগে থেকে কোডিং বা ওয়েব ডেভেলপমেন্টের অভিজ্ঞতা থাকার দরকার নেই আপনার।

প্রোগ্রামে পাচ্ছেন

  • বেসিকস থেকে শুরু করে অ্যাডভান্সড সব বিষয়ের উপর ১০০+ ঘণ্টার ভিডিও কন্টেন্ট
  • ২০টি রিয়েল-লাইফ প্রজেক্ট (যেমন, ইকমার্স ওয়েবসাইট)
  • আপনার করা প্রজেক্টের উপর সরাসরি ফিডব্যাক
  • সমস্যায় পড়লে কমিউনিটি ও মেন্টর সাপোর্ট
  • ৮টি লাইভ সেশন
  • ওয়েব ডেভেলপার হিসাবে পোর্টফোলিও বানানোর গাইডেন্স
  • ওয়েব ডেভেলপারের জব প্রিপারেশন গাইডেন্স
  • পারফরম্যান্স ভালো হলে আপনার সিভি ও পোর্টফোলিও বহুব্রীহির পার্টনার কোম্পানিগুলোতে পাঠানোর ব্যবস্থা
4 2 votes
Article Rating
Rate This Article
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments